x 
Empty Product
Monday, 05 March 2018 07:28

দশমিনায় আমের মুকুল দেখে স্বপ্নে বিভোর

Written by 
Rate this item
(0 votes)
অন্যান্য বছর একটু আগেই গাছে আমের মুকুল দেখা দিলেও এবারে শীতকালে পর্যাপ্ত ঠান্ডা আবহাওয়া বিরাজ করায় আমের মুকুল একটু লেটেই ফুটেছে বলে গাছ মালিকগন জানিয়েছেন। উপজেলার আম চাষী কাজী সরোয়ার, কাজী আনিসুর রহমানসহ কয়েকজনে জানান,
 কিছু আম মলিকের বাগান ঘুরে তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে মুকুল একটু পরে আসলেও বর্তমানে আমের মুকুলের অবস্থা সন্তসজনক শেষ পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে যে হারিতে মুকুল এসেছে তাতে এবারে সাপাহারে আমের বাম্পার ফলন হবে এবং আমের বাজার ভাল থাকলে আমচাষীদে ভাগ্য বদলে যাবে ইনশাআল্লাহ।
আমের মুকুল যেন কোন ক্ষতিকারক কীটপতেঙ্গ ক্ষতিসাধন করতে না পারে সে জন্য এখন থেকেই প্রত্যেক আম মালিকগন গাছের পরিচর্যার কাজে ব্যাস্ত হয়ে পড়েছে। বিগত কয়েক বছর ধরে তেতুলিয়া নদী কুল গেসা এ উপজেলায় আমের বাম্পার ফলন ও বাজার মূল্য ভাল থাকায় অনেক আম মলিক আম চাষ করে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছে। বানিজ্যিকভাবে প্রতিবছর এ উপজেলা হতে প্রায় কয়েক কোটি টাকার আম বিভিন্ন স্থানে বেচা কেনা হয়ে থাকে বলেও আম চাষী ও আম ব্যাবসায়ীগন জানিয়েছেন। বর্তমানে উপজেলার মাঠ ঘাটে যে দিকে চোখ যায় শুধু আম বাগান আর বাগান চোখে পড়ে। অনেকেই আম চাষ করে স্বাবলম্বী হওয়ায় অধিকাংশ মানুষ ধান চাষ ছেড়ে দিয়ে আম চাষের দিকে ঝুঁকে পড়েছে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বনি আমিন খান জানান, এ বছর উপজেলায় এবারে আম উৎপাদন ভালো হতে পারে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে উপজেলার আমের চাষ এবারেও অনেক লাভবান হবে বলেও
আমি মনে করি। উপজেলায় সাধারণত লেংড়া, খিরসা, গোপালভোগ, খুদি খিরসা, মহোনভোগ, ফজলী, কয়েক জাতের আশ্বিনা, আমের রাজা উপাদন হয়ে থাকে।
Read 1173 times

Leave a comment

Make sure you enter the (*) required information where indicated. HTML code is not allowed.